Breaking News

ডঃ জাকির নায়েক।Mahrab Mokhles


ডঃ জাকির নায়েক। নাম শুনলেই অনেকে গর্ব করে বলেন।
আল্লাহ ওনাকে নেক হায়াত দান করুক, দ্বীনের খেদমতের জন্য আল্লাহ তাঁকে একজন দা'য়ী হিসেবে কবুল করুক। আর আমিও তাহার জন্য ঐরকমই দোয়া করি।
আমাদের সমাজে অনেক ধর্মান্ধ লোক তাঁকে ইহুদীদের দালাল বলে, এমন কি! আমাকে ইহুদীদের দালাল বলেছে! কেনো সালাতে জোরে আমিন বলি?
কেনো রফ-উল ইয়াদাইন করি?
কেনো বাপ দাদার শেখানো আমলগুলো করি না?
কেনো কথায় কথায় কোরআন ও হাদীসের উদৃতি চাই? কেনো বুকে হাত বাধি?
এটাই ছিলো আমার ভুল আমল।
সোজা সাপটা দলিল হিসেবে বলে, তাহলে কি বাপ দাদারা ভুল করেছে? তুই একদিন আমাদের ইমাম সাহেবের সাথে এ ব্যপারে আলাপ করিস।
শুধু ডঃ জাকির নায়েক নয়, রাজ্জাক বিন ইউসুফ, কাজী ইব্রাহীম, খন্দকার জাহাংগীর, ডঃ আসাদুল্লাহ গালিব এরা মুসলমান নামধারীরা ইহুদী খৃস্টানদের দালাল।
মনে খুব আঘাত লাগে! আর শুধু তাদের জন্য মায়া হয়। প্রমাণ ছারা তারা এসব কথা বলে।
ধর্ম ব্যবসায়ী ইমামরা মসজিদ কমিটির ভয়ে সত্য কথাগুলো গোপন রাখে। সত্য বললে না জানি চাকরিটা যায়!
শুধু ইমামরা নয়! জারা আল্লাহর দেয়া কোরআন পড়তে পারে না। তারা ও ডঃ জাকির নায়েক এর কোরআন পড়ায় ভুল ধরে। সেটা হলো মাখরাজের ভুল।
আবার তিনি আরবীও জানেন না। আরবী না জানলে কি করে এতো জ্ঞানি হয়?
যারা ডঃ জাকির নায়েক সহ সহিহ আকিদার আলেমদেরকে ভুল ও মিথ্যে অপবাদ দিচ্ছেন!
আমি তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করে বলছি,
আপনারা ডঃ জাকির নায়েক সহ সহিহ আকিদার আলেমদের শুধু একটি বক্তব্য মনযোগ সহকারে শুনুন, বক্তব্য এর মাঝে যদি কোরআন ও হাদিসের নম্বর সহ উদৃতি দেয়া থাকে! তাহলে জাচাই করে দেখতে পারেন। তারপরেই বলবেন কাহারা ইহুদিদের দালাল?
রাসুল (সঃ) বলেছেন,
যদি তোমাদের কাছে নতুন কোন আমল আসে! তাহলে তা জাচাই করে নাও।
ডঃ জাকির নায়েক তাঁর বক্তব্যে বলেন, আমি মনে করি ইসলাম সম্পর্কে আমি একজন ছাত্র। আমার অনেক কিছু শেখার আছে। যদি আমার কথায় ভুল হয়! সঠিকটা তুলে ধরবে আমি মানতে বাধ্য।
তাই জাচাই না করে, কাউকে খারাপ মন্তব্য করা ঠিক না। আল্লাহ সবাইকে সঠিক দ্বীন বুঝার তাওফিক দান করুক। 

No comments