Breaking News

নোয়াখালী জেলায় ধর্ষণ এর জরিমানা ১০ বার কেনেধরা আর ১০ হাজার টাকা ।BD420



নোয়াখালী জেলার, সেনবাগে, ছাতারপাইয়া চিলাদী গ্রামে এক মধ্যবয়সী মহিলাকে তার সন্তানের সামনে রাতভর ধর্ষন করে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা ।
 পরে সেই সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে টাকা খেয়ে, গ্রাম্য শালিসের নামে দুই ধর্ষনকারী যুবককে দশবার কানে ধরে ওঠবস করায় এবং মাত্র ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করায়।

নোয়াখালী জেলার, সেনবাগ থানার ছাতারপাইয়া চিলাদী গ্রামে দু সন্তানকে নিয়ে স্বামীর বাড়ী যাবার পথে মধ্যবয়সী (৪৮ বছরের ) এক স্বামীহারা মহিলাকে  গলায় চুরি ধরে ৩ মাদকসেবী রাতভর ধর্ষন করেছে।
 শনিবার সেই অসহায় ধর্ষিত মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে ছাতারপাইয়া - তেমুহনী রোডের ছালা উদ্দিনের ফার্নিচারের দোকানে এক শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 
এতে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত রুবেল ও নুরনবীকে হাজির করা হলেও ধর্ষণের মুলনায়ক মাদক সম্রাট সেলিমের অনুপস্হিতিতে সালিশদার হানিফ ও আবুল কাশেম ওরপে মাছ কাশেম ধর্ষনের সাথে জড়িত রুবেল ও নবীকে ১০ বার করে কান দরে ওঠবস করায় এবং একজনের মাত্র ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা ঘোষনা করেন। আর সেলিমের অনুপস্হিতিতে তার ৩০ হাজার টাকা জরিমানা ঘোষনা করা হয়। 

স্হানীয় গ্রাম্য সালিশের মাধ্যমে কিভাবে এতোবড় জঘন্য কাজ করার পরও সামান্য কানে ধরে ওঠবস করিয়ে অপরাধীদের ছেড়ে দিলেন...? 

অপরাধীদের পার পেতে একটি প্রহসন মুলক বিচার তা স্পষ্টত্বর। আমি জানি এই ধর্ষক যুবক গুলো আবারও কারো মা বোনকে ধর্ষণ করবে ।

ধর্ষক তিন যুবক স্তানীয় জনপদের মাদক সম্রাট।
এত বড় ঘটনা হয়ে যাবার পরও থানা পুলিশে না দিয়ে বিচারকদের রহস্যজনক আচরনে একটি বিধবা মহিলার সতীত্বহরন ও মানবাধিকার লংঘনের অভিযোগ ওঠেছে সেনবাগের উত্তর জনপদে।
স্তানীয় এলাকাবাসীর দাবী, ৩ ধর্ষক ও বিচারকদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

No comments

'; (function() { var dsq = document.createElement('script'); dsq.type = 'text/javascript'; dsq.async = true; dsq.src = '//' + disqus_shortname + '.disqus.com/embed.js'; (document.getElementsByTagName('head')[0] || document.getElementsByTagName('body')[0]).appendChild(dsq); })();