Breaking News

আজকে সারাটা দিন 5G নিয়ে অনেক লাফালাফি করেছে বাংলাদেশের ফেইসবুক ব‍্যবহারকারীরা || RIGHTBD


আজকে সারাটা দিন 5G নিয়ে অনেক লাফালাফি করেছে বাংলাদেশের ফেইসবুক ব‍্যবহারকারীরা। কিন্তু এই লাফালাফি যারা করেছে তাদের মধ্যে ৯৯% শুধু মাত্র হেডলাইন দেখেই লাফালাফি করেছে। কিন্তু ভিতরের খবর পড়ে নাই।
আসলে আজকে 5G এর উদ্বোধন হয় নাই। হয়েছে 5G Testing এর। ITU ( International Telecommunication Union ) হচ্ছে দুনিয়াতে মোবাইলের এইসব 3G, 4G বা 5G বা ভবিষ্যত G এর Standard তৈরি করে। এছাড়াও কোন ক্ষেত্রে কেমন Spectrum দরকার!!Satellite কোন Orbit এ থাকবে। মানে Communication বিষয়ে সকল নীতিমালা এরা তৈরি করে। এবং দুনিয়ার সব দেশ তা মানতে বাধ্য। সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ITU এর সদর দপ্তর।
আজকে 5G পরীক্ষা যেইটা হয়েছে তা আসলে বাংলাদেশ সরকার করে নাই। করেছে Huawei। কারণ Huawei Network Equipment Build করা শুরু করেছে 5G এর জন্য। এমনকি দুনিয়ার প্রথম 5G Supported মোবাইল হিসেবে Huawei তাদের নিজস্ব প্রসেসর Kirin দিয়ে এই বছরের শেষের দিকে। এখন 5G Testing এর জন্য তো বাংলাদেশের Frequency use করতে হবে। বাংলাদেশ সরকার BTRC এর মাধ্যমে এই বছরের শুরুর দিকে HUAWEI-কে অনুমতি দিয়েছে এই পরীক্ষা করার জন্য। Huawei তিন মাসের জন্য Frequency ব‍্যবহার করতে চাইলেও BTRC দিয়েছে এক সপ্তাহের জন্য।

 সোনারগাঁও হোটেল ও তার আশপাশের এলাকা পর্যন্ত সীমাবদ্ধ থাকবে এই 5G। এবং শুধু মাত্র Authorised Person ঐ নেটওয়ার্কে প্রবেশ করতে পারবে। আর যেহেতু মোবাইল এখনো বাজারে আসে নাই। তাই মডেম দিয়ে এই পরীক্ষা করছে Huawei। এই পরীক্ষার কারণ হচ্ছে কোন দেশে কেমন হবে 5G। ঐভাবেই নীতিমালা বানাবে ITU। আর Huawei এই পরীক্ষা করছে কারণ ভবিষ্যতের 5G মার্কেটটা দখলে নেওয়ার জন্য। তা মোবাইল ও নেটওয়ার্ক টেকনোলজি দিয়ে।

এইসবের সাথে থাকতে হবে যে কোন এক সীম কোম্পানি!! রবী তাই Huawei-কে এই সাপোর্ট দিচ্ছে। জানেনই তো রবী আবার সব কিছুতে .5 বেশি থাকতে চায়। তাই ভবিষ্যতে যদি 5G আসে বাংলাদেশে তাহলে রবী Huawei এর কাছ থেকে আলাদ একটা সুবিধা আদায় করতে পারবে এই সহযোগিতার বিনিময়ে!!
এখন অনেকের মনেই প্রশ্ন আসতে পারে, 5G Supported মোবাইল আসে নাই??
না। আসলেই আসে নাই। Network Equipment থাকে মোবাইলের Processor এর সঙ্গে সম্পৃক্ত। 5G Network Supported Processor এখনো কোন Processor তৈরি করা কোম্পানি। মোবাইলের Processor গুলোর মধ্যে জনপ্রিয় হচ্ছে Snapdragon (Qualcomm), MediaTek, Exynos ( Samsung ), Kirin (Huawei), Apple A (Apple)।
*Snapdragon 855 হতে পারে Qualcomm এর প্রথম 5G Supported SoC। আগামী বছর রিলিজ করতে পারে এইটা।



* MediaTek M70 হতে পারে মিডিয়া টেকের প্রথম 5G Supported SoC। ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে আসতে পারে বাজারে।
* Samsung এখনো বলে নাই তাদের Exynos এর কোন ভার্সন প্রথম 5G Supported SoC হবে। তবে তারা বলেছে ২০১৯ সালে তারা রিলিজ করবে তাদের প্রথম 5G Supported SoC।
* Apple এর A12 হবে প্রথম 5G Supported SoC। তবে Apple বলছে ২০২০ সালের আগে তারা 5G এ যেতে চাচ্ছে না।



* Huawei বলেছে এই বছরের শেষের দিকে তারা দুনিয়াতে সর্বপ্রথম 5G Supported Processor আনবে। এবং ২০১৯ সালের মার্চে সর্বপ্রথম তারা 5G Supported মোবাইল বাজারে আনবে। সম্ভবত WMC-19 এ ঘোষনা দিবে। নিচে Android Authority এর একটা লিঙ্ক দিচ্ছি। ঐটা পড়লেই সব জানতে পারবেন। এছাড়াও গুগলে সার্চ দিলে আরো জানতে পারবেন।
এখন কথা হলো তাহলে কবে 5G আসবে!??! ITU IMT-2020 নামে এক প্রকল্প হাতে নিয়েছে। ২০২০ সালে যেন তারা 5G Network এর উদ্বোধন করতে পারে তা নিয়ে কাজ করছে। ITU এই বছরের শুরুর দিকে 5G সম্পর্কে একটা প্রাথমিক ধারণা দিয়েছে। নিচে তার লিঙ্ক দিয়ে দিচ্ছি। পড়ে দেখলে আরো ভাল বুঝতে পারবেন। ঐখানে বলা আছে, কমপক্ষে কত থাকতে হবে 5G এর গতি, কত Spectrum use হবে। এমন যাবতীয় সকল তথ্য। এইসব তথ্য এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। দুনিয়ার বিভিন্ন দেশে 5G এর পরীক্ষা চলছে। এইসব পরীক্ষার ফলাফল নিয়েই চূড়ান্ত নীতিমালা তৈরি হবে। নীতিমালা চূড়ান্ত না হলে মোবাইল কি ভাবে তৈরি হবে আর অপারেটর কোম্পানি গুলো কি ভাবে কাজ শুরু করবে?? আপাতত ধারণা অনুযায়ী ২০২১ সালের আগে কোন দেশেই 5G আসছে না (যদি না 5G Supported ফোনের বিক্রি বেশি হয়)। আর বাংলাদেশে??? নামকাওয়াস্তে ২০২৫ সালের দিকে আসতে পারে যদি দেশে 5G এর Structure ঠিক মতো হয়। 3G নাই অনেক জায়গায়!! আবার 5G!!



এখন কথা হলো আজকের লাফালাফির কারণ কি!! আসলে আমরা বাংলাদেশের মোবাইলের ইন্টারনেট স্পিড নিয়ে অনেক Frustrated। তাই গালিগালাজ করছি। কিন্তু কেউ ভিতরের খবর পড়ি নাই!!! আর সরকার!! দক্ষিণ এশিয়াতে তো তিলকে তাল বানানোর নামই রাজনীতি!! কোন কারণ ছাড়া শুধুমাত্র নিজেদের ঢোল পিটানোর জন্য সরকার এই পরীক্ষার খবর এতো বড় করে ছেড়েছে। কিন্তু এই পরীক্ষা তো দুনিয়ার সব দেশেই হচ্ছে। ভারত আর বাংলাদেশ ছাড়া 5G test নিয়ে কোন দেশেই এতো লাফালাফি হয় নাই!! আর আমরাও সরকারের নিজেদের স্বার্থে বাজানো ঢোলের বারিতে নেচেছি!!

( ফেইসবুক থেকে নেয়া )

No comments