Breaking News

বিএনপিকে পরাজিত করতে তৃণমূল বিএনপি কাজ করবে || RIGHTBD


আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪-দলীয় জোটের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপিকে চূড়ান্ত পর্যায়ে পরাজিত করার লক্ষ্যে তৃণমূল বিএনপিসহ ৯টি দল আমাদের সঙ্গে কাজ করতে চায়। তিনি বলেন, এজন্য ৯টি দলের নীতিনির্ধারকদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

 তবে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি, সিদ্ধান্ত নিবেন শেখ হাসিনা। বুধবার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মোহাম্মদ নাসিম ও তৃণমূল বিএনপিসহ ৯টি দল জোটে গঠনের লক্ষ্যে আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ সব কথা বলেন তিনি।
তিনি বলেন, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কাজ করতে চাই বিএনপি জামায়াতের অশুভ শক্তিকে চূড়ান্ত পরাজিত করার লক্ষ্যে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তারা আমাদের সঙ্গে কাজ করতে চায়।
নাসিম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এ ব্যাপারে নির্দেশনা আছে এর লক্ষ্যে আমরা তাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছি একাত্তর ঘাতকদের লালনকারী খালেদা জিয়ার অশুভশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে সেখানে ছোট বড় সবাইকে নিয়ে আন্দোলন করতে চায় তারা । এ লড়াইয়ের সঙ্গে শরিক হতে চাই বলে তাই তাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছি।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যে অশুভ শক্তি আছে বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের আশ্রয় দিয়েছিল তারা আজও চক্রান্তের সঙ্গে জড়িত আছে। তিনি আরো বলেন, সামনে ডিসেম্বরের নির্বাচন, নির্বাচন কমিশনের নির্ধারিত সময়েই হবে। সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী কাজ করে যাচ্ছেন নিরলসভাবে। মানবতার নেত্রী হিসেবে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে এমনকি এই চৌদ্দ দল সঙ্গে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। আর সেই নেত্রীকে বারবার বাধাগ্রস্ত করার জন্য চক্রান্ত হচ্ছে তারপরও বাংলাদেশকে বিস্ময় স্থানে নিয়ে গেছেন শেখ হাসিনা। চৌদ্দ দলের মুখপাত্র আরও বলেন, নির্বাচনের মাধ্যমে তাদের পরাজিত করব এই লড়াইয়ে আমরা সবাইকে সঙ্গে নিয়ে করতে চাই ।
ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার নেতৃত্বাদীন তৃণমূল বিএনপি ছাড়া অন্যান্য দলগুলো হলো— গণতান্ত্রিক আন্দোলন, ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক এলায়েন্স, সম্মিলিত ইসলামিক জোট, কৃষক শ্রমিক পার্টি, একামত আন্দোলন, জাগো দল, ইসলামিক ফ্রন্ট ও গণতান্ত্রিক জোট।
তৃণমূল বিএনপির নাজমুল হুদা বলেন, জাতীয়তাবাদী শক্তি বলতে তাদেরই বোঝায় যারা অসাম্প্রদায়িক শক্তিকে বিশ্বাস করে। সেই জাতীয়তাবাদী শক্তি আজ অসাম্প্রদায়িকতা। সেই জাতীয়তাবাদের বিরুদ্ধে আমাদের সুদৃঢ় আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য জাতীয়বাদী জোট হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর অনুরাগী হয়ে কাজ করতে চাই। বিশেষ করে যে সমস্ত চক্রান্ত হচ্ছে জনগণের বিরুদ্ধে সেটাকে মোকাবিলা করার জন্যই এই অসাম্প্রদায়িকতা জোট করার জন্য কাজ করব।
তিনি বলেন, শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত করেছেন এ লক্ষ্যেই বাংলাদেশের জনগণ হবে সকল ক্ষমতার উৎস। এদেশের সাম্প্রদায়িক সাম্প্রদায়িক কাণ্ডের বিরুদ্ধে একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন আগামীতে নিশ্চিত করে, বাংলাদেশের জনগণ সরকারের প্রতিষ্ঠিত করবে আমরা মনেকরি । এখন আর জ্বালাও পোড়াও হয় না কারণ শেখ হাসিনা তার বুদ্ধি দিয়ে সব কিছু বন্ধ করছেন। বিএনপি ভুল করেছে এজন্য আমরা সমর্থন করি না। অসাম্প্রদায়িক জাতীয়তাবাদী জোট গঠন অশুভ শক্তিকে মোকাবেলা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবর প্রস্তাব রাখবে।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বাহাউদ্দিন নাছিম, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাসদ একাংশের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, জাসদ অন্য অংশের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামীল লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দিলীপ রায়সহ ১৪ দলের মত বিনিময় সভায় আগত নয়টি দলের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

No comments