Breaking News

কোটা আন্দোলন ছাত্রদের অধিকারের আন্দোলন নয়: মাকসুদ কামাল || rightbd

কোটা সংস্কার আন্দোলন ছাত্রদের অধিকার আদায়ের আন্দোলন নয় বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল। বুধবার সকাল ১১ টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের প্রধান ফটকের সামনে শিক্ষক সমিতি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এই মন্তব্য করেন।
অধ্যাপক মাকসুদ কামাল বলেন, কোটা আন্দোলন ছাত্রদের অধিকারের আন্দোলন নয়। এই আন্দোলন হল, নির্বাচনের বছরকে অস্থিতিশীল তৈরি করার। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করে, সরকারকে অস্থিতিশীল করে, রাষ্ট্রীয় ভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার পথ উন্মোচন করার। এই আশঙ্কা আমরা প্রথম থেকে করেছিলাম। সে আশঙ্কা আজ প্রমাণিত হয়েছে।
শিক্ষক সমিতির সভাপতি আরো বলেন, লন্ডন থেকে কোটা আন্দোলনকে উস্কে দেয়া হচ্ছে, যাতে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করা যায়। বঙ্গবন্ধুকে কটূক্তির পর যখন হাততালি দেয়া হয়, তখন আমাদের আর বোঝার অবকাশ থাকে না কারা এই আন্দোলনের পেছনে রয়েছে।
গত ১৯ এপ্রিল অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ এক সমাবেশ থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক আকমল হোসেনের বক্তব্যের প্রতিবাদের আজকের এই মানববন্ধনের আয়োজন করে শিক্ষক সমিতি। ওই সমাবেশে অধ্যাপক আকমল হোসেন বলেছিলেন, মুক্তিযুদ্ধ একটি মহান ঘটনা আমাদের জাতির জীবনে। এটা নিয়ে যেভাবে অবস্থান নেয়া হয়, বক্তব্য দেয়া হয়, তাতে মুক্তিযুদ্ধকে অবমাননা করা হয়। আমার প্রশ্ন আমাদের প্রধানমন্ত্রী কি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন? তার পিতা যার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের রাজনৈতিক নেতৃত্ব তৈরি হয়েছিল তিনি কি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন? তাহলে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের মাধ্যমে যদি বিচার করা হয় কে অন্যায়ের প্রতিবাদ করবে তা হলে তা হবে অত্যন্ত একটি নেতিবাচক ধারণা।
এই বক্তব্য প্রদানের জন্য অধ্যাপক আকমল হোসেন বিচার চেয়ে মাকসুদ কামাল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ও সরকারি ভাবে যেন, বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে হেয় করে বক্তব্য প্রদানকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়। আপনাদের কাছে আহ্বান এই ব্যাপারে ব্যবস্থা নিন। শিক্ষক সমিতি এই ব্যাপারে বিন্দু মাত্র ছাড় দিবে না।
এদিকে, বক্তব্যের বিষয়ে অধ্যাপক আকমল হোসেন এক বিবৃতির মাধ্যমে জানান, আমার বক্তব্যে আমার বিভাগীয় সাবেক ছাত্র ও পরবর্তী সময়ে সহকর্মী মোহাম্মদ তানজীমউদ্দিন খান এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক ফাহমিদুল হকের উপর ১৬ জুলাই শহীদ মিনারে সংঘটিত হেনস্তার (যখন তানজীমকে অত্যন্ত অশিষ্টভাবে আঙ্গুল তুলে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে তিনি কেন মুক্তিযুদ্ধে যাননি) প্রসঙ্গ টেনে প্রশ্ন করেছিলাম যে, মুক্তিযুদ্ধে যোগদান কোনো অন্যায়ের প্রতিবাদ করার মাপকাঠি হতে পারে কি না? বিষয়টি ব্যাখ্যা করতে যেয়ে আমি এমন কথা বলেছিলাম।

No comments