Breaking News

ঘরেই যাদের ঐক্য নেই, তাদের কিসের জাতীয় ঐক্য


আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও অর্জন বিএনপির আন্দোলনের ওপর সংকটের কালো ছায়া ফেলেছে। তিনি বলেন, দেশে কোনো সংকট নেই। বিএনপির নিজেদের ঘরের মধ্যে সংকট রয়েছে। কারণ তারা নিজেরা একে অপরকে সরকারের দালাল হিসেবে অভিহিত করে থাকে। ঘরেই যাদের ঐক্য নেই, তারা কিসের জাতীয় ঐক্য করবে।

ওবায়দুল কাদের আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর ফার্মগেটে আনন্দ সিনেমা হলের সামনে সপ্তাহব্যাপী গণসংযোগ কর্মসূচির লিফলেট বিতরণ–পূর্ব এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে গণসংযোগ কর্মসূচি চালাচ্ছে আওয়ামী লীগ।






প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও অর্জন এবং নির্বাচন বানচাল ও সরকার পতনের নামে বিএনপি-জামায়াতের নাশকতার কথা জনগণের সামনে তুলে ধরতে আওয়ামী লীগ এই গণসংযোগ কর্মসূচি গ্রহণ করে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, সারা দেশে নৌকার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আগামী বিজয়ের মাসে যে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, সে নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধের প্রতীক নৌকা ভাসতে ভাসতে বিজয়ের বন্দরে পৌঁছে যাবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দেশে হঠাৎ একটি খবর দিলেন, জাতিসংঘের মহাসচিব বিএনপির নেতাদের আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন। মির্জা ফখরুল জাতিসংঘে গেলেন। কিন্তু জাতিসংঘ মহাসচিব বিশিষ্ট এক ব্যক্তির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে ঘানায় অবস্থান করছিলেন।

বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল অবশেষে জাতিসংঘের এক সহকারী সেক্রেটারি জেনারেলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে দেশের বিরুদ্ধে নানা নালিশ করেন। যাঁরা জাতিসংঘের মহাসচিবের আমন্ত্রণপত্র নিয়ে দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেন, তাঁদের কাছে কখনো দেশ, গণতন্ত্র ও আইনের শাসন নিরাপদ থাকতে পারে না।

কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্তানের পরিচয়ে বাবার সঙ্গে মায়ের নাম যুক্ত করে নারী সমাজের মর্যাদা ও সম্মান বৃদ্ধি করেছেন। আগামী জাতীয় নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনাকে বিজয়ী করে নারীদেরও তাঁর মর্যাদা রক্ষা করতে হবে।






ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে আনন্দ সিনেমা হলের সামনের মার্কেটে ব্যবসায়ীদের মধ্যে লিফলেট বিতরণ করেন। 
আওয়ামী লীগের সপ্তাহব্যাপী গণসংযোগ কর্মসূচির চতুর্থ দিনে আজ সকালে রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফের নেতৃত্বে সরকারের উন্নয়ন ও অর্জন এবং বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস ও নাশকতার তথ্য নিয়ে তৈরি লিফলেট বিতরণ করা হয়। এ ছাড়া বিকেল চারটায় দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের নেতৃত্বে রাজধানীর বংশাল এলাকায় গণসংযোগ কর্মসূচি পরিচালিত হয়।

No comments